প্রবাসী অধ্যুষিত সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলা

এক নজরে বিশ্বনাথ

ভৌগলিক পরিচিতিঃ বিশ্বনাথ উপজেলা ৪৪.৪৪ হতে ২৪.৫৬ উত্তর অক্ষাংশ এবং ৯১.৩৯ হতে ৯১.৫০ পূর্ব দ্রাঘিমায় অবস্থিত। বিশ্বনাথ উপজেলার পূর্বে সিলেট সদর ও দক্ষিণ সুরমা উপজেলা, পশ্চিমে সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর ও ছাতক উপজেলা, উত্তরে সিলেট সদর এবং দক্ষিণে সিলেট জেলার ওসমানীনগর উপজেলা অবস্থিত। সিলেট বিভাগীয় শহর থেকে প্রায় ১৪ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে বিশ্বনাথ উপজেলার অবস্থান। 

পটভূমিঃ হযরত শাহজালাল (রহঃ) এর স্মৃতি বিজড়িত দু’টি পাতা একটি কুঁড়ির দেশ পূণ্যভূমি সিলেট জেলার অন্যতম লন্ডন প্রবাসী অধ্যুষিত উপজেলা ‘‘বিশ্বনাথ’’। শ্রীহট্টের ইতিহাস ও সিলেট বিভাগের ইতিহাস সম্পর্কিত অন্যান্য গ্রন্থ থেকে জানা যায় হাজার বছরের  আবহমান ঐতিহ্য ও সামাজিক পরিবেশে এ জনপদ গড়ে ওঠে। হযরত শাহজালাল (রহঃ) এর অন্যতম সফর সঙ্গী শাহ চান্দ, শাহ কালু, শাহ কবির (রহঃ) সহ অসংখ্য সুফী সাধক ও কীর্তিমান লোকদের দ্বারা আলোকিত ‘‘বিশ্বনাথ উপজেলা’’। 

নামকরণঃ ইতিহাস ও ঐতিহ্যের ক্রমবিকাশ পর্যালোচনা করলে দেখা যায় যে, এখানে মুসলমান ও হিন্দু জমিদারদের  আবির্ভাব ঘটেছিল। ১৭৯৩ সালে লর্ড কর্নওয়ালিসের চিরস্থায়ী বন্দোবস্তের সময় বর্তমান বিশ্বনাথ বাজার ও    অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ স্থান সমূহের জমিদারী পান  বাবুরাম জীবন রায় ও তাঁর  পুত্র বিশ্বনাথ রায় চৌধুরী। কালক্রমে উক্ত এলাকায় প্রাথমিকভাবে বিশ্বনাথ বাজারসহ বিভিন্ন প্রশাসনিক প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছিল বলে সংশ্লিষ্ট জমিদার বিশ্বনাথ রায় চৌধুরীর নামানুসারে ‘‘বিশ্বনাথ’’ নামকরণ হয়েছিল।

 ভূমি ব্যবস্থাঃ

  • আয়তনঃ ২৫১.২১ বর্গ কিলোমিটার
  • তহশিল অফিসঃ ৪
  • ভূমি অফিসঃ ১
  • জমির পরিমাণঃ ৫৪২০৮ একর
  • অনাবাদী জমির পরিমাণঃ ১৩৮৩৮ একর
  • আবাদ উপযোগী জমির পরিমাণঃ ৪০৩৭০ একর
  • জলমহালঃ ৩৬ টি
  • ২০ একরের নীচে জলমহালঃ ১২টি
  • ২০ একরের উর্দ্ধে জলমহালঃ ৮টি
  • বদ্ধ জলমহালঃ ৪টি
  • উন্মুক্ত জলমহালঃ ১৪টি
  • বালুমহালঃ ০২ টি (কাপনা নদী বালু মহাল  ও মাকুন্দা নদী বালু মহাল)

সাধারণ তথ্যঃ 

  • ২৪ মার্চ ১৯৮৩ ইংরেজী তারিখে বিশ্বনাথ উপজেলায় রুপান্তরিত হয়
  • সিলেট জেলা সদর হতে দূ্রত্বঃ ৫২ কিলোমিটার
  • ইউনিয়ন পরিষদঃ ৮
  • পৌরসভাঃ ১
  • ডাকঘর ১৪টি
  • সাব পোঃ অফিস ৪টি
  • গ্রামের সংখ্যাঃ ৪৩৬
  • মৌজারঃ ১৫৫
  • মোট জনসংখ্যাঃ ২,৪১,৪৬৭ (২০১১ সালের আদমশুমারী অনুযায়ী) পুরুষ-১,২০,১৯১ জন ও মহিলা- ১,২১,২৭৬ জন।
  • জনসংখ্যার ঘনত্বঃ ৮৮৪ জন (প্রতি কিলোমিটারে)

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিষয়কঃ

  • শিক্ষার হারঃ  ৪৬.৯% (পুরুষঃ ৪৮.৭%, মহিলাঃ ৪৫.১%)
  • কলেজের সংখ্যাঃ সরকারী – ০১ টি, বেসরকারী – ০৪ টি
  • ইন্টারমিডিয়েট কলেজঃ ৩টি 
  • প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যাঃ সরকারী– ১৩২ টি, কে.জি স্কুল- ৫১ টি
  • মাদ্রাসা/মক্তবের সংখ্যাঃ আলিম– ৩ টি, দাখিল –  ১০ টি, ফাযিল – ১ টি, কওমী-২২টি, ইবতেদায়ী- ০৯ টি।
  • মাধ্যমিক বিদ্যালয়ঃ ৩২ টি ( সরকারী– ১, বেসরকারী– ৩১)
  • ডিগ্রী কলেজঃ ১ টি
  • মহিলা কলেজঃ ১টি

ধর্মীয়ঃ

  • মসজিদের সংখ্যাঃ ৫৫০ টি
  • মন্দিরের সংখ্যাঃ ১০ টি

স্বাস্থ্য সম্পর্কীয়ঃ

  • উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সঃ ০১ টি
  • ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রঃ ৫ টি
  • কমিউনিটি ক্লিনিকঃ ১৯ টি
  • পশু হাসপাতাল/ প্রাণিসম্পদ দপ্তরঃ ১ টি
  • কৃত্রিম প্রজনন কেন্দ্রঃ ১ টি

যোগাযোগ ও পরিবহনঃ

  • মোট পাকা রাস্তাঃ ২১২ কিলোমিটার
  • রেলপথঃ ১৫ কিলোমিটার
  • নদীপথঃ ৪০ কিলোমিটার
  • রেলস্টেশনঃ ২ টি
  • কাচাঁ রাস্তাঃ ৫১০.১৫ কিলোমিটার
  • পুল/কালভাটের সংখ্যাঃ ২৬০ টি
  • নদীর সংখ্যাঃ ২ টি (বাসিয়া ও মাকুন্দা নদী)

দর্শনীয় স্থান

  • রামপাশা গ্রামে হাছন রাজার বাড়ী (জমিদার বাড়ি)
  • দেওকলস ইউনিয়নে কান্দিগাঁও গ্রামে ৫০০ বছরের পুরানো জমিদার বাড়ী
  • খাজাঞ্চীগাঁও রেলওয়ে স্টেশন
  • গড়গাঁও সাতপারি দীঘি ও জাহাজের মাস্তুল
  • গৌরপগোবিন্দ দিঘী
  • চান্দভরাং গ্রামে ৩৬০ আওলিয়ার সফর সঙ্গী  শাহ চান্দ শাহ কালুর মাজার ও পাথর।
  • রামধানা শাহী ঈদগাহ।
  • উপজেলা পরিষদ শহীদ মিনার

কৃতি ব্যক্তিত্ব

  • বিশ্বনাথ চৌধুরী — তার নামানুসারে বিশ্বনাথ থানার নামকরণ হয়।
  • এম ইলিয়াস আলী — রাজনীতিবিদ।
  • দানবীর রাগীব আলী — সমাজ সেবক ও শিল্পপতি।
  • রূশনারা আলী — বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ রাজনীতিবিদ।
  • ড. শাহদিন মালিক — আইনজীবি ও সংবিধান বিশেষজ্ঞ।
  • ড. তুহিন মালিক —একজন বিশিষ্ট আইনজীবি – সংবিধান বিশেষজ্ঞ।
  • দেওয়ান হাসন রাজা চৌধুরী — মরমী কবি ও সংগীতকার।
  • দেওয়ান একলিমুর রাজা চৌধুরী — রাজনীতিবিদ ও সাহিত্যিক, ১৯৩৭–১৯৪৬ সালে আসাম প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য।
  • দেওয়ান তৈমুর রাজা চৌধুরী — রাজনীতিবিদ ও মরমী গীতিকার, ১৯৪৬–১৯৪৭ সালে আসাম প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য, ১৯৬৫ সালে পূর্ব পাকিস্তান প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য, ১৯৭৯ সালে বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সদস্য এবং রেল, সড়ক ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী ছিলেন।
  • মুহাম্মদ নূরুল হক — লাইব্রেরিয়ান ও সম্পাদক।
আরিফ হাসান
আরও পড়ুনঃ

 





Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.