ভারত সিরিজ না খেলার কারণ খোলাসা করলেন তামিম!

বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা ওপেনার হিসিবে ধরা হয় তামিম ইকবালকে। সকল ফরম্যাটে বাংলাদেশে সবচেয়ে বেশী রান সংগ্রাহক গত বিশ্বকাপ থেকেই রান খরায় আছেন।

বিশ্বকাপ পরবর্তী শ্রীলংকা সিরিজেও তামিম ইকবাল স্বরূপে ফিরতে পারেননি। তাই দেশের মাঠিতে অনুষ্টিত ত্রিদেশীয় সিরিজে খেলেননি বাংলাদেশ দলের অপরিহার্য এই খেলোয়ার। এই সময় নিজের ফিটনেস নিয়ে ঘাম ঝড়িয়েছেন তিনি।

প্রস্তুত হচ্ছিলেন নভেম্বরের ভারত সিরিজের জন্য। কিন্তু দল ঘোষণার আগে হঠাতই এই সিরিজ থেকে নিজের নাম সরিয়ে নিলেন তিনি। এ বিষয়ে অনেক শোরগোল হচ্ছিল। তবে এর পরেই তামিম ইকবাল তার অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে এ সম্পর্কে একটি স্ট্যাটাস দেন।

ফেসবুক স্ট্যাটাসে তামিম ইকবাল লিখেন, ‘আপনারা জানেন, পারিবারিক কারণে ভারত সফর থেকে আমি বিরতি নিয়েছি। এই সিরিজে খেলতে না পেরে আমি নিজেও ভীষণ হতাশ’।

বাংলাদেশ প্রথমবার ভারতে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে যাচ্ছে। আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপেও আমাদের প্রথম ম্যাচ এই সফরে। এই সফর ও নতুন মৌসুমের জন্য আমি খুব ভালোভাবে প্রস্তুতি নিয়েছিলাম।

দেশের বাইরে গিয়ে আলাদা করে এক মাস ফিটনেস ট্রেনিং করেছি। দেশে ফিরে ব্যাটিং অনুশীলন করেছি। শারীরিক ও মানসিকভাবে দারুণ প্রস্তুতি নিয়েছি। কিন্তু তার পরও সফরে যেতে পারছি না, কারণ কখনও কখনও পরিবার ও আপনজনের পাশে ক্রিকেট গৌণ হয়ে ওঠে।

আমি ও আমার স্ত্রী আমাদের দ্বিতীয় সন্তানের অপেক্ষায় দিন গুনছি। আমার স্ত্রীর শারীরিক অবস্থার কারণে আমাদের ধারণার চেয়ে একটু বেশি সময় ওকে হাসপাতালে থাকতে হচ্ছে। আমার মনে হয়েছে, এই সময়টায় ওর পাশে আমার থাকা উচিত।

এজন্যই ছুটি নিতে হয়েছে। এমনিতেই পরিবার থেকে অনেকটা সময় আমরা দূরে থাকি, তাদেরকে প্রাপ্য সময়টুকু দিতে পারি না। আমাদের পরিবারের সদস্যারা অনেক ত্যাগ স্বীকার করেন। অন্য অনেক সময় না পারলেও জীবনের এই সময়গুলোতে অন্তত পরিবার আমাকে পাশে চাইতেই পারে।

আমি আমার দলকে মিস করব, ক্রিকেট মাঠকে মিস করব। তবে জীবনের এই গুরুত্বপূর্ণ সময়ে স্ত্রী যেন আমাকে মিস না করে, সেটুকু নিশ্চিত করতে চেয়েছি। সবার কাছে আমাদের জন্য দোয়া চাইছি। ইনশাল্লাহ খুব দ্রুতই আবার আমাকে মাঠে দেখতে পাবেন।

কঠিন সময়ে পাশে থাকার জন্য ও সমর্থনের জন্য সবাইকে ধন্যবাদ।

Mustafa Shakir
আরও পড়ুনঃ
Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.